Skip to content

ছাগল পালনে সফল কত সময় লাগে? কখন বুঝবেন আপনি ছাগল পালন করে সফল? ছাগল পালন করে কোটিপতি

ছাগল পালনে সফল ছাগল পালন করে সফল সফল ছাগল খামার ছাগল পালনে সফলতা ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী ছাগল পালন করে সফল ছাগল পালন করে লাভবান ছাগল পালন করে আয় ছাগল পালন

সফল ছাগল খামার বা ছাগল পালনে সফলতাঃ

• একটা ব্রিডিং ফার্ম এর সফলতার প্রথম পর্ব কোন সময়টাকে বলা হয়? এবং দ্বিতীয় প্রজন্মের প্রজনন প্রক্রিয়া কোনটাকে বলা হয়? একটা ব্রিডিং ফার্ম এর সফলতার প্রথম পর্ব বলতে বোঝানো হয়েছে আপনি যে ছাগলগুলি দের ফার্মিং শুরু করবেন তা আপনার ফার্মে আসার পর এখানকার জলবায়ু এখানকার খাবার সবকিছুকে নিজের শরীরের সঙ্গে মানিয়ে নেয় এরপরে এর প্রথম প্রজনন হয় এবং প্রজজনের পরে এরা যখন বাচ্চা প্রসব করে এই যে সময়টা এই সময়টাকে কিন্তু সফলতার প্রথম পর্ব বলা হয়।

ছাগল পালনে সফল ছাগল পালন করে সফল সফল ছাগল খামার ছাগল পালনে সফলতা ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী ছাগল পালন করে সফল ছাগল পালন করে লাভবান ছাগল পালন করে আয় ছাগল পালন

• এবারে ফার্মে দ্বিতীয় পর্বে গমন এবং দ্বিতীয় প্রজন্মের প্রজনন প্রক্রিয়া প্রথমবারে প্রজননের ছাগলের বাচ্চা হল যে বাচ্চাগুলি ধীরে ধীরে বড় হতে থাকলো বড় হওয়ার পর যখন সেই ফিমেল বাচ্চাগুলি প্রজননের জন্য উপযুক্ত হয় এবং তাদেরকে ব্রীডিং করানো হয় এই হচ্ছে দ্বিতীয় প্রজন্মের প্রজনন প্রক্রিয়া।

 

• কুড়িটা ফিমেল এবং তিনটে পাঠা নিয়ে ফার্ম শুরু করা হলে প্রথম পর্ব থেকে  দ্বিতীয় প্রজন্মে আসতে মোটামুটি 15 থেকে 20 মাস লাগতে পারে এবং প্রথমবার বাচ্চা প্রসব করে প্রথমবারে 20 থেকে 25 খানা বাচ্চা পাওয়া যেতে পারে। তাদের মধ্যে কিছু কিছু মেইল যখন বড় হয়ে যায় তাদেরকে সেল আউট করে মেয়ে ছাগলগুলোকে রেখে দিতে হয়।

 

• সেই প্রথম ধাপের যে বাচ্চাগুলি সেগুলি প্রায় নয় মাস, দশ মাস, কারো এক বছর এই সময়ের মধ্যে কিন্তু তাদেরকে আমরা ব্রীডিং করাতে পারব। এভঅবে উক্ত ফার্ম তৃতীয় প্রজন্মে পৌছাতে আরও আরো প্রায় 15 থেকে 18 মাস সময় লাগবে আর এই সময় পর হলেই কিন্তু আমরা তৃতীয় প্রজন্মের পৌঁছে যাব। আর যখন আমরা এই তৃতীয় প্রজন্ম কে অতিক্রম করব তখন যে সময়টা আসবে সেটাই হচ্ছে একটা ব্রিডিং ফার্ম এর সম্পূর্ণ সফলতা।

 

• এই জন্যই কিন্তু আমি বারবার বিভিন্ন আলোচনায় আপনাদের কে বলি যে একটা সত্যি কারের ব্রিডিং ফার্ম এর সফলতা পেতে মিনিমাম তিন বছর সময় লাগবে। যদি আপনি সঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারেন, সঠিক ভাবে যদি আপনি মমতাকে চালাতে পারেন।

 

• একটা জিনিসকে আপনারা খুব ভালভাবে খেয়াল করবেন দেখবেন ইউটিউবে বহু এরকম ফার্ম দেখতে পাওয়া যায়। যাদের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে বাইরে থেকে ছাগল কালেকশন করা এবং বিক্রি করা। তারা কোন দিনও সত্য কথা বলে ছাগল বিক্রি করেন না এ কথাটা উল্লেখ করেন না যে আমরা বাইরে থেকে নিয়ে এসেছি অর্থাৎ ট্রেডিং করি। উনারা কিভাবে মানুষকে বলছেন আমাদের এতদিন ধরে এখানে ফার্মিং করা হচ্ছে, আমাদের কাছে এই প্রজাতির ছাগল রয়েছে, আমরা এই পদ্ধতিতে ফার্মিং করে প্রতি মাসে এত টাকা ইনকাম করি, এত টাকা ইনকাম করি, খুব সহজ পদ্ধতি, খুব সহজে ফার্মিং, করার সময় এইসব কথা শুনে নতুন কিছু আগ্রহী বন্ধুরা সেখানে গিয়ে যাচ্ছে উনাদের কথা অনুযায়ী সেখান থেকে ছাগল ক্রয় করতে এসে উনার কথা অনুযায়ী ফার্মিং শুরু করলেন কিন্তু বেচারা ফার্মিং কাকে করতে পারলেন না।

 

• আসল বাস্তবটা কি জানেন যে ব্যক্তি ফার্মিং এর নাম করে ট্রেডিং করতে সে হয়তো অন্যকোন ফার্মের সঙ্গে যুক্ত ছিল। হয়তো কোন মুরগির ফার্ম, এরপর সেখানে লস হওয়ার পর এ গোট ফার্মিং আসে। এখানে দেখছেন শুধু বাইরে থেকে ছাগল কালেকশন করে নিয়ে আসছে দুই-চারটা মানুষকে ভিডিও বানিয়ে ইমপ্রেস করে ছাগল বিক্রি করা। এখানে একটা সত্য কথা বলতে কি জানেন যারা ফার্মিং এর নামের ট্রেডিং করে দেখবেন খামার এই যে শব্দ টা প্রথমে ”খ” এর মানে তারা আপনাদেরকে বুঝাতে পারবেন না। উনি আপনাদেরকে খামার শেখাবেন কি? কি ফার্ম করা শেখাবেন?

 

• কিন্তু কিছু ব্যক্তি আছেন যারা সত্য কথা বলে কিন্তু এই ট্রেডিংয়ের বিজনেসটা করে। তারা বলে আপনার ছাগল লাগবে আমরা সংগ্রহ করে দেবো কিন্তু কোনোরকম মিথ্যা কথা বলেনা। তারা সঠিকভাবে বাইরে থেকে ছাগল কালেকশন করে নিয়েছে আপনাকে দায়িত্ব অনুযায়ী পৌঁছে দেবেন, মালটা কিভাবে আপনি ট্রিটমেন্ট কিভাবে খামার করবেন সেটা আপনার উপর।

 

• সাধারণ মানুষ কারণ ছাড়াই যেকোন জায়গা থেকে কোন জিনিস কেনার আগে আগে সঠিকভাবে যাচাই করা উচিত। আপনি যে ব্যক্তির হাত ধরে রাখলেন এবং যে ব্যক্তির উপর ভর করে আপনি গোট ফার্মিং এর সামনের দিকে এগিয়ে যাবেন আগে সেই ব্যক্তিকে চিনুন। আদৌ সেই পথ সঠিক জানি কি না আর যদি সেই ব্যক্তির সঠিকভাবে জানা না থাকে তাহলে কিন্তু আপনাকে ওই ভুল পথেই নিয়ে যাবেন। আর বাস্তবে কিন্তু এটাই চলছে।

 

• অনেক এরকম ফার্মার রয়েছে যারা নিজেকে ফার্মার বলে আদৌ কিন্তু তারা কোন ফর্মারই নন।  যার কারণেই মানুষ কিন্তু ভুল পথে চলছে। সত্যতা যাচাই না করে এইভাবে ভুলভাল মানুষদের কাছ থেকে সাজেশন নিয়ে ওনাদের কাছ থেকে ছাগল কিনে ফার্মিং শুরু করলে আবার ফার্ম গুলো বন্ধ করে দিচ্ছে।

 

• যদি কেউ কোন সৎ উদ্দেশ্য নিয়ে এগিয়ে চলে অবশ্যই সে উদ্দেশ্যে পৌঁছাবে আর আমাদের এই উদ্দেশ্য যদি সঠিক হয় অবশ্যই আমরাও কিন্তু উদ্দেশ্যে পৌঁছাতে পারবো এর জন্যই আমরা ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি এবং আপনাদের কাছে আশা করি ঈশ্বরের অসীম কৃপা আপনাদের আশীর্বাদ ও ভালোবাসা যদি আমাদের সঙ্গে থাকে অবশ্যই উদ্দেশ্যে কিন্তু আমরা জয়ী হবো।

 

বন্ধুরা কেমন লাগলো আমাদের আজকের এই পোষ্টটি অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবেন। সম্পূর্ণ লেখাটি পড়ার পর ভিডিওতে দেওয়া তথ্য যদি সঠিক বলে মনে হয় অবশ্যই ভিডিওটি বেশি বেশি করে শেয়ার করে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দেবেন। আর আমাদের ব্লগের নতুন পোষ্ট পেতে আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করে রাখবেন। সকলে ভাল থাকুন, খামারিয়ান এর সাথেই থাকুন। মূল আলোচনাটি সংগ্রহিত।

এই পোষ্টটি কেমন লেগেছে?

রেটিং দিতে স্টার এ ক্লিক করুন!

Average rating 1.5 / 5. Vote count: 2

No votes so far! Be the first to rate this post.

We are sorry that this post was not useful for you!

Let us improve this post!

Tell us how we can improve this post?

(চাইলে পোষ্টটি শেয়ার করতে পারেন)

Leave a Reply

Your email address will not be published.