Skip to content

 

সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের আবেদন পত্র

সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের আবেদন পত্র

স্কুল-কলেজে কিংবা বিভিন্ন অফিসে বা সংস্থায় প্রতিষ্ঠান প্রধান বা দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে অনুরোধ জানিয়ে পত্র লেখার প্রয়োজন হয়। এ ধরনের পত্রকে দরখাস্ত বা আবেদনপত্র বলে। আবেদনপত্রের আকার সাধারণত সংক্ষিপ্ত হয়। সেখানে মূল প্রসঙ্গটি যথাযথভাবে উপস্থাপন করাটাই লক্ষ্য। এ ধরনের পত্রে অনেক সময়ে প্রমাণ স্বরূপ প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের অনুলিপি সংযুক্ত করা হয়।

নিচে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের আবেদন পত্রের নমুনা দেখানো হলো।

সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের আবেদন পত্রঃ

১০ অক্টোবর ২০২১

প্রধান শিক্ষক
কুলকান্দি শামসুন্নাহার উচ্চ বিদ্যালয়
কুলকান্দি, ইসলামপুর
জামালপুর

বিষয়: বাংলা বিষয়ে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের আবেদন।

মহোদয়

সবিনয় নিবেদন এই যে, গত ৩০শে সেপ্টেম্বর ২০২১ তারিখে দৈনিক ইত্তেফাক’ পত্রিকায় প্রকাশিত বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানতে পারলাম, আপনার বিদ্যালয়ে বাংলা বিষয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের জন্য দরখাস্ত আহ্বান করা হয়েছে। আমি উক্ত পদের একজন প্রার্থী। আমার ব্যক্তিগত তথ্য ও শিক্ষাগত যোগ্যতা নিম্নরূপ:

১. নাম : রেখা আক্তার

২. মাতার নাম : খোদেজা বেগম

৩. পিতার নাম : একরামুল হক

৪. বর্তমান ঠিকানা : ৩৩ পশ্চিম নয়াপাড়া, জামালপুর সদর উপজেলা, জেলা: জামালপুর

৫. স্থায়ী ঠিকানা : গ্রাম: হরিণধরা, ডাকঘর: কুলকান্দি, ইউনিয়ন: কুলকান্দি, উপজেলা: ইসলামপুর, জেলা: জামালপুর

৬. জন্ম তারিখ : ২৫ জুন ১৯৯৪

৭. জাতীয়তা : বাংলাদেশি

৮. ধর্ম : ইসলাম

৯. শিক্ষাগত যোগ্যতা :

পরীক্ষাশিক্ষা প্রতিষ্ঠানবোর্ড/বিশ্ববিদ্যালয়পাশের বছরবিভাগফলাফল
এসএসসিশহিদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ঢাকা২০১১মানবিকজিপিএ 4.00
এইচএসসিইসলামপুর ডিগ্রি কলেজঢাকা২০১৩মানবিকজিপিএ ৪.৫০
বিএ (সম্মান)জাহেদা শফির মহিলা কলেজজাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়২০১৭বাংলামানবিক জিপিএ ৪.৫০

আমার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করছি।

নিবেদক

(স্বাক্ষর)
রেখা আক্তার
৩৩ পশ্চিম নয়াপাড়া
জামালপুর সদর উপজেলা
জেলা: জামালপুর

সংযুক্তি:
ক. সকল শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের অনুলিপি
খ. জাতীয় পরিচয়পত্রের অনুলিপি
গ. দুই কপি ছবি
ঘ. তিনশো টাকার পে-অর্ডার

একটি আবেদনপত্রে গুরুত্বপূর্ণ অংশ সমূহঃ

  1. আবেদনের তারিখ।
  2. প্রাপকের নাম পদবী ও ঠিকানা।
  3. আবেদনের বিষয়।
  4. সম্মান সূচক শব্দ ( জনাব- জনাব, স্যার-ম্যাডাম)।
  5. আবেদন পত্রের বিষয়টির গঠনমূলক বর্ণনা।
  6. আবেদনকারীর নাম পদবী ও ঠিকানা।

আবেদন পত্র লেখার ধাপ সমূহঃ

আবেদন পত্র বা দরখাস্ত একটি formal বা আনুষ্ঠানিক পত্র। এজন্য এটি লেখার ক্ষেত্রে কিছু নির্দিষ্ট নিয়মাবলী অনুসরণ করতে হয়। কেননা সুনির্দির্ষ্ট নিয়মাবলী অনুসরণ না করলে , অনেকাংশেই আবেদন করা এই পত্রটি অকার্যকর বা বাতিল হিসেবে গণ্য হয়ে যাতে পারে। 

  1. সবার প্রথমে, বাম পাশে তারিখ লিখতে হয়।
  2. এরপর কর্তৃপক্ষ বা প্রাপকের নাম, পদবী এবং ঠিকানা লিখতে হবে।
  3. যার নিচে যাবে আবেদন এর বিষয় লিখতে হবে।
  4. বিষয় লেখার নিচে সম্ভাষণ, (মহোদয়, জনাব, মহাশয়) লিখতে হয়।
  5. এরপর আবেদনপত্রটির মূল অংশ, এখানে বিষয়সংক্রান্ত সুনির্দিষ্ট এবং সংক্ষিপ্ত আকারের গঠনমূলক বর্ণনা করতে হয়।
  6. আপনার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা লেখার পর নিচে বিনীত/নিবেদক কথাটি লিখতে হয়।
  7. এরপর প্রেরক বা আবেদনকারীর নাম ও ঠিকানা উল্লেখ করতে হবে।
  8. সর্বশেষে আবেদনপত্রটি একটি সুন্দর খামের মধ্যে রেখে কর্তৃপক্ষ বা প্রাপকের নিকট পাঠাতে হয়।

আবেদন পত্র লেখার নিয়ম সমূহঃ

বাড়িতে যখন আমরা কোনো  জিনিশের জন্য আবদার করে থাকি এটা যদি যুক্তিযুক্ত হয় এবং উপস্থাপন ভালো হয় তাহলে আমরা খুব সহজেই আমাদের পছন্দের জিনিসটি পেয়ে যাই। ঠিক তেমনি আবেদনের ভাষা যদি মার্জিত এবং  বিষয়বস্তু যুক্তিযুক্ত হয় তাহলেই আবেদনটি গ্রহণযোগ্য হবে।

  1. সাধারণত আবেদন লেখার জন্য A4 সাইজের কাগজ হলে ভালো হয়।
  2. আবেদন লেখার জন্য বামপাশে ০.৫” উপরে ১”  মার্জিন রাখলে ভালো হবে।
  3. প্রথমে যেদিন আবেদন করবে সেই তারিখ লিখতে হবে।
  4. বরাবর লিখে শুরু করতে হবে
  5. এরপর আবেদনএর  প্রাপকের নাম  পদবী ঠিকানা লিখতে হবে।
  6. পঞ্চম ধাপে আবেদনের মূল বিষয়বস্তু সংক্ষেপে উপস্থাপন করতে হবে। কারন একটি আবেদনপত্রের মূল বিষয়।
  7. বিষয়ে লেখার পর তাকে সম্বোধন করতে হবে। সাধারণত জনাব/ জনাবা/ স্যার  ইত্যাদিতে সম্বোধন করে লেখা হয়। বাংলা আবেদনের জন্য জনাব এবং ইংরেজিতে লেখার জন্য সার হিসেবে সম্বোধন করায় অধিকতর শ্রেয়।
  8.  এরপর সম্মানের সহিত আপনার সংক্ষিপ্ত পরিচয় দিয়ে অর্থাৎ প্রতিষ্ঠান সাথে আপনার কি রকম সম্পর্ক সেটা উল্লেখ করে আবেদন এর মূল বিষয় কারন সহ  লিখবেন।
  9. আবার সম্মানের সহিত লেখা শেষ করবেন।
  10.  এরপর বিনীত নিবেদক লিখে আবেদনকারী অর্থাৎ আপনার নাম, ঠিকানা  লিখে সমাপ্ত করবেন।
  11.  লেখা শেষ হলে সম্পূর্ণ আবেদনটি আবার চেক করে নিবেন। তারপর একটা খামে ভরে প্রাপকের ঠিকানায় পাঠিয়ে দিবেন।

Copyright Notice

কপি করা নিষিদ্ধ!